শিরোনাম :

শহীদ কাপুরের স্ত্রীর কাঁধে ছাড়ের ব্যাগ

Category : বিনোদন | Sub Category : বিনোদন Posted on 2019-07-17 03:27:17


শহীদ কাপুরের স্ত্রীর কাঁধে ছাড়ের ব্যাগ

 কথায় আছে, সংসার সুখের হয় রমণীর গুণে। বলিউড তারকাদের পত্নীরাও তার ব্যতিক্রম নয়। আর তা প্রমাণ করলেন শহীদ কাপুর-পত্নী মীরা। স্বামীর পকেট বাঁচাতে ছাড়ের সুবিধা নিলেন শহীদ-পত্নী।


সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে বলিউড অভিনেত্রীদের রীতিমতো পাল্লা দেন মীরা রাজপুত। হামেশাই ইন্টারনেটে তাঁর ছবি দ্রুত ভাইরাল হয়। অভিনেত্রী না হয়েও বিটাউনের অন্যতম ফ্যাশন আইকন শহীদ-পত্নী। মীরার ফ্যাশন স্টেটমেন্ট প্রায়ই চর্চায় উঠে আসে। নামীদামি ব্র্যান্ডের পোশাকে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ঝড় তোলেন তিনি। কিছুদিন আগে এক বিয়ের অনুষ্ঠানে মীরার পিচরঙা লেহেঙ্গা সবার নজর কেড়েছিল। তবে মীরাও আর পাঁচটা গৃহিণীর মতো বরের টাকা বাঁচাতে পিছপা হন না।



সম্প্রতি মীরার লালরঙা হ্যান্ডব্যাগ চর্চায় উঠে এসেছে। দিন কয়েক আগে এই বিটাউন সুন্দরীর হাতে লাল রঙের ব্যাগটি দেখা গেছে। ব্যাগটি দেখতে সাধারণ হলেও সবার নজর কেড়েছে। এমনকি এই লালরঙা ব্যাগটির দামও প্রকাশ্যে এসেছে। ভট্টেগা ভেনেটা ব্র্যান্ডের ব্যাগটির দাম ১ লাখ ৯৬ হাজার ২০৭ রুপি। তবে এখানে শহীদের পকেট বাঁচিয়েছেন মীরা। এত দাম দিয়ে তিনি ব্যাগটি কেনেননি। সেলেতে অনেক সস্তায় মীরা ব্যাগটি কিনেছেন। ব্র্যান্ডের ব্যাগটি কিনতে মীরার খরচ হয়েছে মাত্র ৬৬ হাজার রুপি। সেলেতে তিনি প্রায় দেড় লাখ রুপির মতো বাঁচিয়েছেন। সত্যি যোগ্য গৃহিণী মীরা।


এদিকে শহীদ কাপুর অভিনীত ‘কবির সিং’ বক্স অফিসে দারুণ ব্যবসা করেছে। এই বছরের সবচেয়ে হিট ছবি এটি। এখন পর্যন্ত ‘কবির সিং’ ২৫৯ কোটি রুপি ব্যবসা করেছে। এমনকি শহীদের ক্যারিয়ারে এটি সবচেয়ে হিট ছবি। আর স্বামীর সাফল্যে মীরা যারপরনাই খুশি, তা বলার অপেক্ষা রাখে না। শহীদ এক সাক্ষাৎকারে প্রথম আলোকে বলেছিলেন, ‘কবির সিং’ ছবিটি করতে তিনি প্রথমে রাজি ছিলেন না। মীরা তাঁকে ছবিটি করার পরামর্শ দেন। জীবনের সবক্ষেত্রেই তিনি মীরার পরামর্শ নেন বলে জানিয়েছিলেন। শুধু ক্যারিয়ারের দিক থেকে নয়, পারিবারিক দিক থেকেও শহীদ যে কতটা খুশি, তা বারবার ধরা পড়েছে। ইনস্টাগ্রামে হামেশাই শহীদ, মীরা, মিশা, জায়ানের সুন্দর সুন্দর মুহূর্তের ছবি দেখা যায়।

শেয়ার করুনঃ

     

আপনার মতামত লিখুন: