সিঙ্গাপুরে নেয়ার সিদ্ধান্ত নায়ক ফারুককে ”শারীরিক অবস্থার অবনতি

ঢাকাই চলচ্চিত্রের কিংবদন্তি অভিনেতা ও ঢাকা-১৭ আসনের সাংসদ আকবর হোসেন পাঠানকে উন্নত চিকিৎসার জন্য সিঙ্গাপুরে নেয়া হচ্ছে।

শরীরে প্রচন্ড জ্বর নিয়ে এখন পর্যন্ত দুইবার হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিল নায়ক ও সংসদ সদস্য ফারুক। গত ১৮ আগস্ট রাজধানীর ইউনাইটেড হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন। ধারণা করা হয়েছিল তিনি করোনায় আক্রান্ত। কিন্তু বেশ কয়েক দফায় করোনা টেস্ট করা হলে সেখানে রেজাল্ট নেগেটিভ আসে। তখন বেশ কয়েকদিন হাসপাতালে চিকিৎসা শেষে কিছুটা সুস্থ হয়ে ২৬ আগস্ট হাসপাতাল থেকে বাসায় যান তিনি।

৩১ আগস্ট ফারুকের শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে ফারুককে আবার হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয় । বেশ কয়েকদিন চিকিৎসা শেষেও তার শারীরিক অবস্থার কোনো উন্নতি হয়নি। এরপর তাকে গত ৫ সেপ্টেম্বর এভারকেয়ার হাসপাতালে (অ্যাপোলো) স্থানান্তর করা হয়।

বেশ কিছু পরীক্ষা নিরীক্ষা করা হয়, করোনা টেস্ট করে দেখা হয়েছে সেখানেও নেগেটিভ এসেছে। তবুও তার শারীরিক অবস্থার কোনো উন্নতি হয় না। জ্বর কমেনি। ১০১ ডিগ্রির নিচে নামেনি জ্বর।

তরুণ বয়স থেকেই তিনি রাজনীতির সাথে যুক্ত ছিলেন ফারুক। স্কুল জীবন থেকে আওয়ামী লীগের রাজনীতির সাথে সম্পৃক্ত হন। ১৯৬৬ সালে তিনি ছয় দফা আন্দোলনে যোগ দেন এবং এ সময়ে তার নামে প্রায় ৩৭টি মামলা দায়ের করা হয়। ১৯৭১ সালে বাংলাদেশের মহান মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণ করেন। ফারুক ২০১৮ সালে অনুষ্ঠিতব্য একাদশ বাংলাদেশের সাধারণ নির্বাচনে ঢাকা-১৭ সংসদীয় আসন থেকে আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী হিসেব নির্বাচনে অংশগ্রহণ করেন এবং সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন।