যুদ্ধ বাঁধলে মধ্যপ্রাচ্য থেকে ফিরিয়ে আনা হবে শ্রমিকদের

নিজস্ব প্রতিবেদক: আর কোনো নারী শ্রমিককেই সৌদি আরবে নির্যাতনের স্বীকার হতে হবে না। তারপরেও কেউ ভুক্তভোগী হলে দেশটির বাংলাদেশ দূতাবাসে অভিযোগ করার পরামর্শ দিয়েছেন প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী ইমরান আহমেদ।

আজ (রোববার) সকালে প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রনালয়ে আয়োজিত মিট দ্য প্রেসে তিনি এ কথা জানান।

স্বচ্ছতা নিশ্চিত না করে মালয়েশিয়ার শ্রমবাজার আপাতোত খোলা হচ্ছে না বলেও নিশ্চিত করেন মন্ত্রী।

চলমান পরিস্থিতিতে মধ্যপ্রাচ্যে যুদ্ধ বেঁধে গেলে শ্রমিকদের ফিরিয়ে আনার ব্যাপারে সরকারের চিন্তা- ভাবনা রয়েছে বলেও জানান ইমরান আহমেদ।

অনুষ্ঠানে বিগত বছরে প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রনালয়ের বিভিন্ন অর্জনের কথা তুলে ধরেন মন্ত্রনালয়ের সচিব মোহাম্মদ সেলিম রেজা। তিনি বলেন, প্রবাসীদের টাকা পাঠানোর ওপর প্রনোদনা দেওয়ায় বিদেশে যাওয়া লোকের সংখ্যা কমলেও রেমিট্যান্স বাড়ছে।

দক্ষ শ্রমিক পাঠানোর ওপর জোর দিয়ে মন্ত্রী বলেন, জাপান, চীনসহ পূর্ব ইউরোপের অনেক দেশেই স্বল্প পরিসরে শ্রমিক পাঠানো শুরু হয়েছে। তবে অবৈধ্যভাবে বিদেশ গিয়ে শ্রমবাজার নষ্ট না করার অনুরেধ জানান প্রবাসী কল্যাণমন্ত্রী ইমরান আহমেদ। মালয়েশিয়ার শ্রমবাজার আপাতত খুলছে না বলেও জানান তিনি।

বিদেশে শ্রমিকদের নিরাপত্তা নিয়েও কথা বলেন ইমরান আহমেদ। সৌদিতে আর কোনো নারী শ্রমিক নির্যাতনের স্বীকার হবেনা বলে নিশ্চিত করেন তিনি।

মধ্যপ্রাচ্যে চলমান উত্তজেনা নিয়ে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন, অঞ্চলটিতে কোনো রকম যুদ্ধ পরিস্থিতি তৈরি হলে নিরাপদে বাংলাদেশী শ্রমিকদের ফিরিয়ে আনার ব্যবস্থা করা হবে। এ ব্যাপারে পররাষ্ট্র মন্ত্রনালয়ের সঙ্গে কথা-বার্তা চলছে বলেও জানান তিনি।