মহেশপুরে ২সন্তান সহ বিয়ের দাবী নিয়ে এক নারীর ছেলের বাড়ীতে অবস্থান

মোস্তাফিজুর রহমান উজ্জল,মহেশপুর(ঝিনাইদহ)প্রতিনিধিঃ ঝিনাইদহের মহেশপুরে বিয়ের দাবী নিয়ে এক নারী ২সন্তান সহ বিয়ের দাবী নিয়ে ছেলের বাড়ীতে অবস্থান করছে।

এলাকাবাসী জানিয়েছে শৈলকুপা উপজেলার পৌরসভার মালী পাড়া এলাকার লিয়াকত আলীর মেয়ে স্বামী পরিত্যাক্তা নাতাশা খাতুন (৩০) ৬ বছর পূর্বে ঝিনাইদহ শহরে ২সন্তান নিয়ে বসবাস করা কালীন মহেশপুর উপজেলার মালাধরপুর গ্রামের ইব্রাহিম মাষ্টারের ছেলে আব্দুর রহমানের সাথে সম্পর্ক হয়।

সম্পর্কের এক পর্যায়ে আব্দুর রহমান ভুয়াকাবিন করে নাতাশার সাথে বিয়ে করেন। সে সময় তার দুই সন্তান কে বিদ্যালয়ে ভর্তি করে দেন এবং খাতাপত্রে পিতার নাম আব্দুর রহমান লেখা হয়। সেই থেকে ৬বছর নাতাশার সাথে ঘর সংসার করে আসছে। ইতি মধ্যে আব্দুর রহমান ঝিনাইদহ শহরে আরো এক মেয়ের সাথে সম্পর্ক করে।

সম্পর্কের বিষয়ে নাতাশা জানতে পেরে আব্দুর রহমানের সাথে কথাকাটাকাটি হলে তিনি নাতাশার সাথে ভুয়াকাবিন করে বিয়ে করা হয়েছে বলে জানিয়ে সেখান থেকে চলে আসে পরে কাজী অফিসে যেয়ে কোন কাবিন নামা না পওয়ায় দুপুরে নাতাশা দুই সন্তান নিয়ে বিয়ের দাবিতে মারাধরপুর গ্রামের ইব্রহিম মাষ্টারের বাড়ীতে অবস্থান করছে। এদিকে আব্দুর রহমান বাড়ীথেকে সটকে পড়েছে।

এ বিষয়ে মহেশপুর থানার তদন্তকারী কর্মকর্তা এস আই সঞ্জয় জানান, ঘটনাটি শুনারপর আমি মালাধরপুর গ্রামে যেয়ে ওই মহিলাকে থানায় আসতে বলি। তিনি এসে আব্দুর রহমান সহ তিন জনের নামে একটি অভিযোগ পত্র দিয়ে গেছে।