পিকে হালদারসহ ২০ জনের ব্যাংক হিসাব জব্দের আদেশ বহাল: আপিল বিভাগ

প্রশান্ত কুমার হালদারসহ ২০ জনের পাসপোর্ট ও ব্যাংক হিসাব জব্দে হাইকোর্টের আদেশ বহাল রেখেছেন আপিল বিভাগ। আজ বুধবার ( ২৬ ফেব্রুয়ারি) সকালে প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নেতৃত্বাধীন চার বিচারপতির আপিল বেঞ্চ এই আদেশ দেন।

এ সময় আর্থিক খাতে দুর্নীতি নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেন আপিল বিভাগ।

এর আগে গতকাল প্রতিষ্ঠানটির আর্থিক দুর্নীতি নিয়ে আপিল বিভাগকে ব্যাখ্যা দেন বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্বাহী পরিচালক শাহ আলম।

এছাড়া ইন্টারন্যাশনাল লিজিং অ্যান্ড ফাইন্যান্স লিমিটেডের স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান থাকবেন খোন্দকার ইব্রাহিম খালেদ।

এসময় আদালতে রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম। বাংলাদেশ ব্যাংকের পক্ষে ছিলেন ব্যারিস্টার তানজিব উল আলম। ইন্টারন্যাশনাল লিজিং অ্যান্ড ফাইন্যান্স সার্ভিস লিমিটেডের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী আহসানুল করিম।

হাইকোর্ট পিকে হালদার ছাড়াও যাদের ব্যাংক হিসাব ও পাসপোর্ট জব্দের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে তারা হলেন- কোম্পানির ব্যবস্থাপনা পরিচালক এম নুরুল আলম, পরিচালক জহিরুল আলম, এমএ হাশেম, নাসিম আনোয়ার, বাসুদেব ব্যানার্জী, পাপিয়া ব্যানার্জী, মোমতাজ বেগম, নওশেরুল ইসলাম, আনোয়ারুল কবির, প্রকৌশলী নরুজ্জামান, আবুল হাশেম, মো. রাশেদুল হক, পি কে হালদারের মা লীলাবতী হালদার, স্ত্রী সুস্মিতা সাহা, ভাই প্রিতুষ কুমার হালদার, চাচাতো ভাই অমিতাভ অধিকারী, অভিজিৎ অধিকারী, ব্যাংক এশিয়ার সাবেক পরিচালক ইরফান উদ্দিন আহমেদ, পিকে হালদারের বন্ধু উজ্জ্বল কুমার নন্দী।