পাঁচ মিনিট স্কোয়াটেই পেতে পারেন অনেক উপকার

অনিয়মিত পার্টি পিকনিক থেকে জাঙ্ক ফুডে আসক্তি, বাড়াচ্ছে শরীরের মেদ। এদিকে ব্যস্তবহুল জীবনে সময় নেই শরীর চর্চার, তাতে কী? মাত্র পাঁচ মিনিট বিশেষ উপায়ে দাঁড়ালেই হয়ে যাবে আপনার মুশকিল আসান। পাঁচ মিনিট ‘দ’ হয়ে দাঁড়ালেই কমবে শরীরের মেদ ও ওজন দুটোই। ব্যায়ামের পরিভাষায় যাকে বলে স্কোয়াট। বিশেষজ্ঞদের মতে, রোজ শরীরচর্চার সময় না পেলেও নিয়ম করে মিনিট পাঁচেক স্কোয়াটেই পেতে পারেন অনেক উপকার।

কী ভাবে অভ্যাস করবেন?

অনান্য যোগার চেয়ে অত্যন্ত সহজ উপায় বাড়িতে নিজে নিজেই অভ্যাস করতে পারেন এই স্কোয়াট, লাগবেনা কোনও ট্রেনার।

১) চেয়ারে বসার মতো করে হাঁটু ভাঁজ করে কোমর ও পিঠ সোজা রেখে দাঁড়াবেন।

২) দাঁড়ানোর সময় হাত দুটো একদম সামনের দিকে টানটান করে ছড়িয়ে দিন। এভাবে প্রতিদিন পাঁচ মিনিট করে অভ্যাস করুন।

স্কোয়াটের উপকারিতা:

১) কোমর ও পায়ের পেশিকে শক্তসমর্থ করে স্কোয়াট।

২) হাঁটাহাঁটিতে যে পরিমাণ ক্যালোরি বার্ন হয়, তার চেয়েও বেশি ফ্যাট ঝরাতে পারে এই ব্যায়াম।

৩) দীর্ঘদিন ধরে এই ব্যায়াম অভ্যাসের ফলে দূর হয় পেশিতে টান, গাঁটে ব্যথা।

৪) বিশেষজ্ঞদের মতে পেশির জোর বাড়ানোর পাশাপাশি টেস্টোস্টেরন ও গ্রোথ হরমোন ক্ষরণে বিশেষ কার্যকর এই ব্যায়াম। যার জেরে পেশির বৃদ্ধি ও ভরকে নিয়ন্ত্রণ করা অনেক সহজ হয়।

৫) পেশির নমনীয়তা বাড়িয়ে, শরীরের গঠন, পিঠ ও কোমরের আকার ও গোটা শরীরে নানা অ্যাব তৈরি করতে স্কোয়াট একাই একশো।

৬) ক্ষতিকর ফ্যাট গলিয়ে ডায়াবেটিস, ওবেসিটি ইত্যাদি থেকে শরীরকে অনেকটাই দূরে রাখে সঙ্গে শরীরের রক্ত সঞ্চালন স্বাভাবিক রাখে। তাই আর দেরি আজ থেকেই শুরু করুন স্কোয়াটের অভ্যাস।