‘নন-কোভিড হাসপাতালগুলোকে ফের কোভিডে রূপ দেয়া হচ্ছে’

নন-কোভিড ঘোষণা করা হাসপাতালগুলোকে ফের কোভিড হাসপাতালে রূপ দেয়ার প্রস্তুতি চলছে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্য সচিব।

রোগীর সংখ্যা কমে যাওয়ায় করোনার চিকিৎসার জন্য যেসব হাসপাতালকে কোভিড হাসপাতাল হিসেবে ঘোষণা করা হয় সেগুলোকে নন-কোভিড ঘোষণা করা হয়। তবে, ফের সংক্রমণ বৃদ্ধি এবং করোনার দ্বিতীয় দফায় আঘাত হানার পূর্ব প্রস্তুতি হিসেবে নন-কোভিড ঘোষণা করা হাসপাতালগুলোকে ফের কোভিড হাসপাতালে রূপ দেয়ার প্রস্তুতি চলছে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্য সচিব আব্দুল মান্নান। সোমবার (২১ সেপ্টেম্বর) দুপুরে সচিবালয়ের একথা জানান স্বাস্থ্য সচিব।

কোভিডের সেকেন্ড ওয়েভ বা দ্বিতীয় দফার সংক্রমণের ভবিষ্যত কি এবং কর্মপরিকল্পনা কি হবে তা নিয়ে আলোচনা হয়েছে এবং সার্বিক প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে বলেও জানান আব্দুল মান্নান।

এদিকে, চীনা কোম্পানি সিনোভ্যাকের তৈরি করোনার ভ্যাকসিনের বাংলাদেশে ট্রায়ালের ব্যাপারে আগামী দু’দিনের মধ্যে সিদ্ধান্ত জানা যাবে বলে জানান স্বাস্থ্য সচিব। যদিও চীনা কোম্পানির তৈরি ভ্যাকসিনের হিউম্যান ট্রায়ালের ব্যাপারে সরকার আগেই অনুমোদন দিয়েছে বলেও জানান স্বাস্থ্য সচিব আব্দুল মান্নান।

এর আগে, করোনার সংক্রমণ কমে যাওয়া এবং হাসপাতালে পর্যাপ্ত রোগী না থাকায় কোভিড হাসপাতালগুলোকে নন-কোভিডে রূপান্তরিত করার ঘোষণা দেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক। তারই ধারাবাহিকতায় একে একে বন্ধ হয়ে যায় করোনা রোগীদের চিকিৎসায় বিশেষায়িত হাসপাতাল। সে সময় সরকারের তরফ থেকে জানানো হয় দেশে করোনার জন্য নির্ধারিত হাসপাতালগুলোর ৭০ শতাংশের বেশি শয্যা ফাঁকা থাকছে। এমনকি হাসপাতালের আইসিইউগুলো ফাঁকা থাকছে। এমন পরিস্থিতিতে হাসপাতালের সংখ্যা কমানো শুরু করে সরকার। তবে, এখন আবার সংক্রমণ বাড়ার শঙ্কা এবং আসছে শীতে করোনা দ্বিতীয় দফার সংক্রমণের বিষয়ে আগাম প্রস্তুতি নিচ্ছে সরকার।