ডুমিরিয়ায় আম্পানে ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা পরিদর্শন করলেন এম পি নারায়ণ চন্দ্র চন্দ।

 জাহাঙ্গীর আলম (মুকুল), ডুমিরিয়া খুলনা প্রতিনিধিঃ ঘূর্ণিঝড় আম্পানের তাণ্ডবে খুলনা ডুমুরিয়া উপজেলায় হাজার হাজার কাঁচা ও সেমিপাকা ঘরবাড়ি বিধ্বস্ত হয়েছে।ও ভেঁড়িবাঁদ ভেঙ্গে দুই তিন শত মৎস ঘের প্লাবিত হয়েছে। ডুমুরিয়া উপজেলা থেকে শুরু করে লতাবুনিয়া, বাদুড়গাছা, শিবপুর ডুমুরিয়া উপজেলার বিভিন্ন গ্রামের ঘরবাড়ি বিধ্বস্ত হয়ে প্রায় ১০/১২ হাজার মানুষের ঠাঁই হয়েছে খোলা আকাশের নিচে।

বাঁধ ভেঙে তলিয়ে গেছে মৎস ঘের ও জমির ফসল। ঘূর্ণিঝড় আম্ফান পরবর্তী বৃহস্পতিবার সকালেই খুলনা ৫ ডুমুরিয়া ফুলতলা থেকে বারবার নির্বাচিত এম পি বাবু নারায়ন চন্দ্র চন্দ ক্ষতিগ্রস্থ এলাকায় ট্রলারযোগে প্লাবিত এলাকা শিবপুর বাদুড়গাছা তেলিগাতী,জাবড়া বকুলতলা পরিদর্শন করেন ও বাঁধ মেরামতের নির্দেশনা দেন।

লতাবুনিয়ায় প্লাবিত ৫০০ পরিবারের পুনর্বাসনে ১ মাস মেয়াদি কার্যক্রম গ্রহণ ও তাৎক্ষণিক খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করেন ও ক্ষতিগ্রস্থ এলাকা পরিদর্শন করেন। এসময় সাথে ছিলেন ডুমুরিয়া উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান গাজী এজাজ আহমেদ , উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোসাঃ শাহনাজ বেগম, উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান শারমিন পারভিন রুমা। ডুমিরিয়া উপজেলা দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা কর্মকর্তা, ডুমিরিয়া উপজেলার ফায়ারসার্ভিস ও ডুমিরিয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের নেতৃবৃন্দ। তবে ডুমিরিয়া উপজেলায় প্রাণহানির কোনো সংবাদ পাওয়া যায়নি। ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ নিরূপণে কাজ করছে উপজেলা প্রশাসন।