টি-টোয়েন্টি সিরিজ হারলো বাংলাদেশ

বিপিএলের উত্তেজনার আয়ুষ্কাল যে এতটা কম, সেটার একটা পরিষ্কার ধারণা দিয়ে দিলো টাইগার ব্যাটসম্যানরা। টানা দুই হারে বাংলাদেশ সিরিজ হেরেছে ইতোমধ্যে। আগামী ২৭ জানুয়ারির ম্যাচটা এখন নিছক সৌজন্যতার।এর আগে লাহোরে দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে স্বাগতিকদের কাছে ৯ উইকেটে হেরেছে সফরকারীরা। টস জিতে ব্যাট করতে নেমে পাঁচ উইকেটে ১৩৬ রানের স্কোর গড়ে মাহমুদুল্লাহ রিয়াদের দল। ১৩৭ রানের টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে সহজেই লক্ষ্যে পৌঁছে যায় পাকিস্তান।

টস জিতে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা মোটেও ভালো হয়নি সফরকারীদের। একাদশে মোহাম্মদ মিঠুনের পরিবর্তে জায়গা হয় মেহেদী হাসানের।ব্যাট করতে নেমে টাইগারদের হতশ্রী ব্যাটিং, ইনিংসের দ্বিতীয় ওভারেই নাঈম শেখের উইকেট হারায় বাংলাদেশ। নাঈমের শূন্য রানে ফেরার পর মেহেদী হাসান ফেরেন ১২ বলে ৯ রান করে।ইনিংসে সর্বোচ্চ রান করেন তামিম ইকবাল। সাজঘরে ফেরার আগে খেলেন ৫৩ বলে ৬৫ রানের ইনিংস। দীর্ঘ দেড় বছর পর টি-টোয়েন্টিতে অর্ধশতকের ইনিংস খেলেছেন দেশ সেরা ওপেনার খ্যাত তামিম ইকবাল।তিনি অর্ধশতক রানের ইনিংস খেললেও দ্রুত রান তোলার দাবী মেটাতে পারেননি বাকি ব্যাটসম্যানেরা। দলীয় ১১৭ রানে তামিম রানআউট হন। এরপর মাহমুদুল্লাহ ব্যর্থ হন।  শেষ পর্যন্ত  পাঁচ উইকেটে ১৩৬ রানের  স্কোর নিয়ে সন্তুষ্ট থাকতে হয় বাংলাদেশ দলকে। সর্বোচ্চ ৬৫ রানের ইনিংস খেলেন তামিম। পাকিস্তানের বিপক্ষে দুই উইকেট নেন হাসনাইন।

১৩৭ রানের সহজ  টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে দলীয় ছয় রানে ওপেনার আহসানের উইকেট হারায় পাকিস্তান। এরপর আর পেছনে ফিরে তাকাতে হয়নি স্বাগতিকদের।  অধিনায়ক বাবর আজম ও মোহাম্মদ হাফিজের দারুণ ব্যাটিংয়ে ম্যাচ থেকে ছিটকে যায় বাংলাদেশ।