করোনা ভাইরাস: খালেদার মুক্তি দাবি

বিশ্বব্যাপী করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের মধ্যে করাবন্দি বিএনপি চেয়ারপারসন ৭৫ বছর বয়সোর্ধ্ব খালেদা জিয়ার শিগগির মুক্তি দাবি করেছেন সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সম্পাদক ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন।

সোমবার (২৩ মার্চ) সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতি মিলনায়তনে সংবাদ সম্মেলন করে এ দাবি করা হয়। সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন, যিনি বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব পদেও রয়েছেন।

লিখিত বক্তব্যে বলা হয়, স্বামী সন্তান হারা সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়ার বয়স ৭৫ বছরের ঊর্ধ্বে। বিভিন্ন রোগ ছাড়াও বয়সজনিত শারীরিক বিভিন্ন জটিলতায় তার শারীরিক অবস্থা দিনদিন অবনতি হচ্ছে এবং তিনি রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতাও হারাচ্ছেন।

তিনি বলেন, কারাবন্দি এবং বঙ্গবন্ধু হাসপাতালে চিকিৎসাধীন সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়ার জীবন আজ অত্যন্ত ঝুঁকিপূর্ণ। কেননা বাংলাদেশের সবচেয়ে বৃহৎ (বিএসএমএমইউ) হাসপাতালে শত শত ডাক্তার এবং নার্স যেখানে প্রতিনিয়ত সুরক্ষা সরঞ্জামাদি ছাড়া কাজ করছেন এবং হাজার হাজার রোগীর চিকিৎসা করছেন। তারা আবার খালেদা জিয়ারও চিকিৎসা করছেন। সুতরাং যেকোনো সময় প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাস ছড়িয়ে পড়তে পারে। যা আল্লাহ না করুক ডাক্তার, নার্সসহ খালেদা জিয়ার জীবন মারাত্মক ঝুঁকিপূর্ণ করতে পারে। মারাত্মক ঝুঁকি বিবেচনায় বিভিন্ন দেশ কারাবন্দিদের মুক্তি দেওয়া হচ্ছে। এ অবস্থয় খালেদা জিয়ার জীবন রক্ষার্থে শিগগির তার মুক্তি দাবি করছি।

বিশ্বব্যাপী করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে যারা মারা যাচ্ছেন, তাদের বেশির ভাগই বয়স্ক, অর্থাৎ ৬০ বছরের বেশি বয়সের। এমনকি বাংলাদেশে যে তিনজন মারা গেছেন এ পর্যন্ত, তারাও ৬০ বছরের বেশি বয়সের। এছাড়া বিশেষজ্ঞরাও বলছেন, করোনা ভাইরাস সংক্রমণে বয়স্করা বেশি ঝুঁকিতে আছেন।