এবারই প্রথম ঈদ উপলক্ষে প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পায়নি কোনো চলচ্চিত্র

করোনা কেড়ে নিয়েছে ঈদের রুপালি পর্দার আনন্দও। গত ছয় দশকের ইতিহাসে এবারই প্রথম ঈদ উপলক্ষে প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পায়নি কোনো চলচ্চিত্র। এতে করে ক্ষতির অংক ছাড়িয়েছে শত কোটি টাকা। ৩ মাস হল বন্ধ থাকায় দর্শক টানতে সরব অনলাইন প্লাটফর্ম। মুক্তি দিয়েছে ছবির গান ও স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র।

রূপালী পর্দা এবার রংহীন। ঈদ বিনোদনের অন্যতম মাধ্যম সেলুলয়েড ঘিরে নিশ্চুপ সিনেমাপাড়া। এফডিসি ঘিরে নেই নির্মাতাদের তোড়জোড়। নেই লাইট ক্যামেরা অ্যাকশন। ফটকের ঝুলানো তালাতেই বন্ধ দেশের সব সিনেমা হল।

কথা ছিল এবারের ঈদে শাকিব খানের বিদ্রোহী ,নবাব এলএলবি, আরেফিন শুভর মিশন এক্সট্রিম, ও সিয়ামের শান রং ছড়াবে প্রেক্ষাগৃহে। প্রাপ্তির খাতায় বড় শূন্য। করোনার চোখ রাঙানিতে বাক্সবন্দি সবকটি ছবি। এতেই বাংলা চলচ্চিত্রের ক্ষতি শত কোটি টাকা।

চলমান বাস্তবতায় সবেধন নীলমনি অনলাইন স্ট্রিমিং প্ল্যাটফর্ম। নির্মাতারা বলছেন, আগামীর সময়টা অনলাইনের। যার আভাস পাওয়া গেছে এবারের ঈদেই। ঘরবন্দী থেকে তৈরি স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র আর ওয়েব সিরিজে ভর করে পরিবারের ঈদ আনন্দ এবার অন্তর্জালে। বাধ্য হয়েই অনলাইন প্ল্যাটফর্মেই ঢুঁ মারছেন চলচ্চিত্রপ্রেমীরা।