উল্লাপাড়ায় নারী ধর্ষণ ও নির্যাতন বিরোধী সমাবেশ অনুষ্ঠিত

 মোঃ আলমগীর,  উল্লাপাড়া প্রতিনিধি: মুজিব বর্ষের অঙ্গীকার, পুলিশ হবে জনতার এই স্লোগানকে সামনে রেখে সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়ায় নারী ধর্ষণ ও নির্যাতন বিরোধী সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে।শনিবার সকাল ১০ টার সময় উল্লাপাড়া মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা দীপক কুমার দাসের সভাপতিত্বে উল্লাপাড়া শহীদ মিনার প্রাঙ্গণে উল্লাপাড়ায় নারী ধর্ষণ ও নির্যাত বিরোধী সমাবেশে অন্যন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন,উপজেলা নির্বাহী অফিসার দেওয়ান মওদুদ আহমেদ, উল্লাপাড়া মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ দীপক কুমার দাস,উল্লাপাড়ার পৌর মেয়র এস এম নজরুল ইসলাম,উপজেলা আওয়ামিলীগের আহবায়ক বীর মুক্তিযোদ্ধা গোলাম মোস্তফা, সলব ইউনিয়ন পরিষদের সাধারন সম্পাদক ও বিজ্ঞান স্কুলের সভাপতি কাজী এহসানুল হক সন্টু,উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান শফিকুল ইসলাম শফি,উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান রিবলী ইসলাম কবিতাসহ আওয়ামিলীগের অঙ্গ সংঘটনের নেতা কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

এসময় পৌর মেয়র এস এম নজরুল ইসলাম তার বক্তব্যে বলেন,বিশ্বের যাহা কিছু মহান সৃষ্টির কল্যাণকর, অর্ধেক তার করিয়াছে নারী,অর্ধেক তার নর।ধর্ষনের হাত থেকে আজ কোনো নারী নিরাপদ নয়।মা বোনদের উদ্দেশ্যে মেয়র নজরুল ইসলাম আরো বলেন,একজন নারী আমার মা হতে পারে,আমার বোন হতে পারে,আবার আমার মেয়ে হতে পারে।আজকে আমরা নারীকে কোথায় নিয়ে গিয়েছি,আমার মা-বোনদের আমরা কোথায় নিয়ে গিয়েছি, প্রশ্ন একটা।তিনি আরো বলেন,দেশ নেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন,ধর্ষনকারীর কোনো দল নেই,কোনো গোষ্ঠী নেই,কোনো মত নেই ও পদ নেই। ধর্ষনকারী সে একজন ধর্ষণকারী, সে মানুষ না,মানুষ হিসাবে তাকে পরিচয় দিতে পারি না।

সলব ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক ও বিজ্ঞান স্কুলের সভাপতি কাজী এহসানুল হক সন্টু তার বক্তব্যে বলেন,ধর্ষণের হাত থেকে আজ কেনো নারী স্কুল, কলেজ,কর্মক্ষেত্র কিংবা ঘরেও নিরাপদ নয়।একজন নারীর সহযোগিতায়ও একজন নারী ধর্ষণ ও নির্যাতনের স্বীকার হচ্ছেন।তিনি আরো বলেন,মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ধর্ষণকারীর বিরুদ্ধে মৃতদন্ড দেওয়ার বিধান জারী করেছেন।এবং দেশবাসী এমন উদ্দোগকে সাধুবাদ জানিয়েছে।